গাজায় হামাসের বিরুদ্ধে ইজরাইলের স্থল অভিযান শুরু

Anweshan Desk

Anweshan Desk

১৪ অক্টোবর ২০২৩, ১৭:২১ পিএম


গাজায় হামাসের বিরুদ্ধে ইজরাইলের স্থল অভিযান শুরু

শনিবার সকাল থেকেই হামাসের বিরুদ্ধে গাজায় ইজরায়েলি প্রতিরক্ষা বাহিনী বা আইডিএফ অভিযান শুরু করে। আইডিএফ এর পক্ষ থেকে জানানো হয়, হামাসের বিরুদ্ধে পুরোদমে অভিযান শুরুর আগে এই তল্লাশি চালানো হচ্ছে। ইজরায়েলে অনুপ্রবেশের জন্য যে ট্যাঙ্ক ও সাঁজোয়া গাড়িগুলি প্রস্তুত রেখেছিল হামাস, তা অ্যান্টি-ট্যাঙ্ক গাইডেড মিসাইল দিয়ে ধ্বংস করে দেওয়া হচ্ছে। খবর রয়টার্স এর। 

বৃহস্পতিবারেই গাজার সাধারণ নাগরিকদের গাজা শহর ছেড়ে চলে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন বলেও জানান ইজরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনীর মুখপাত্র রিয়াল অ্যাডমিরাল দানিয়েল হাগারি। 

তবে গাজায় ইজরায়েলি বাহিনীর স্থল অভিযানের হুমকি দেয়ার পর হামাস গাজার বাসিন্দাদের যার যার বাড়িতে থাকার নির্দেশ  দেয়। ফিলিস্তিনিদের রক্ষার জন্য শেষ রক্তবিন্দু থাকা পর্যন্ত লড়ে যাওয়ার অঙ্গীকারের কথাও তারা বলে। মসজিদের মাইক থেকেও স্থানীয়দের যার যার বাড়িতে অবস্থান করতে নির্দেশ দেয়া হয়।

গতকাল শুক্রবারে ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু বলেন, “আইডিএফ সিংহের মতো লড়াই করছি। এটা সবে শুরু। আমরা কখনও ভুলব না শত্রুরা আমাদের উপরে কী নৃশংস অত্যাচার করেছে। আমরা গোটা বিশ্বকেও ভুলতে দেব না যে বিগত দশকের পর দশক ধরে ইহুদিদের উপরে কী অত্য়াচার করা হয়েছে। আমরা সর্বশক্তি দিয়ে শত্রুদের বিরুদ্ধে লড়াই চালাবো। আমি আবারও বলছি, এটা সবে শুরু।

ইজরায়েলের সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র রিয়াল অ্যাডমিরাল দানিয়েল হাগারি বলেন, তারা গাজায় সন্ত্রাসী সেল ও স্থাপনার হুমকি দূর করতে অভিযান শুরু করেছে এবং  ফিলিস্তিনি রকেট হামলাকারীদের ‘নির্মূল’ করবে। পাশাপাশি হামাসের হাতে জিম্মি ইজরায়েলিদের অবস্থান জানার চেষ্টা করছে তারা।

এদিকে ইজরায়েলে হামাসের হামলায় এখন পর্যন্ত অন্তত ১৩০০ মানুষ মারা গেছে এবং এখনও ১৫০ জনের বেশি ইসরায়েলি জিম্মি রয়েছে হামাসের হাতে।

অন্যদিকে  হামাসের হামলার জবাবে ইজরায়েল কতৃক গাজায়  চালানো হামলায়  এখন পর্যন্ত ২০০০ মানুষ মারা গেছেন। আহত হয়েছে প্রায় সাত হাজার। ঘর হারিয়ে বাস্তুচ্যুত হয়েছে প্রায় তিন লাখ ৩৮ হাজার মানুষ।


Link copied