নরসিংদীতে লালন আখড়ায় হামলা : আহত ৩ বাউল শিল্পী

Anweshan Desk

Anweshan Desk

০৮ মে ২০২৩, ১০:৫১ এএম


নরসিংদীতে লালন আখড়ায় হামলা : আহত ৩ বাউল শিল্পী

নরসিংদীর বেলাব উপজেলায় লালন সংগীতের আখড়াবাড়ি পুলকিত আশ্রমে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় আশ্রম এবং বাদ্যযন্ত্র ভাঙচুর করা হয়েছে এবং তিনজন বাউল শিল্পী আহত হয়েছেন।

গতকাল রোববার বিকেলে উপজেলার পাটুলি ইউনিয়নের বাবলা গ্রামে পুলকিত আশ্রমে এ ঘটনা ঘটে। আজ সোমবার বিষয়টি জানাজানি হয়।

হামলায় আহতরা হলেন- কিশোরগঞ্জের খোকন বাউল, শেরপুরের মিন্টু বাউল এবং খুলনার রিয়াদ ভূঁইয়া।

আখড়ার প্রতিষ্ঠাতা ও দেখভালকারী জাহাঙ্গীর আলম ভূঁইয়া বলেন, ২০১৭ সালে ভাবলা গ্রামে পুলকিত আশ্রম ‘লালন আখড়াবাড়ি' প্রতিষ্ঠা করি। আমার সঙ্গে স্থানীয় জাহাঙ্গীর শেখ ও শাহীনের পূর্ব বিরোধ রয়েছে। ওই বিরোধের জেরে রবিবার বিকেলে তাদের নেতৃত্বে আশ্রমে হামলার ঘটনা ঘটে।

সোমবার আশ্রমে সাধুসঙ্গের দিন ধার্য ছিল। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে সাধু, ফকির ও বাউল শিল্পীরা আগে থেকেই আশ্রমে উপস্থিত হন।

তার অভিযোগ, রবিবার সঙ্গীতপ্রেমীরা গান-বাজনা করছিলেন এমন সময় স্থানীয় সন্ত্রাসী শাহীন ও জাহাঙ্গীর শেখসহ ৫-৬ জন লোক দেশীয় অস্ত্রসহ আখড়ায় প্রবেশ করেন। তারা প্রথমে শিল্পীদের বাদ্যযন্ত্র (একতারা, ডুগডুগি, হাতবাড়া, খমক, দোতারা, সারিন্দা, তবলা, গিটার, বাঁশি) ভাঙচুর করে। বাধা দিলে তারা শিল্পীদের মারপিট করে তিন শিল্পীকে আহত করে এবং বাদ্যযন্ত্র ভাঙচুর করে।

কিছু বাদ্যযন্ত্র হামলাকারীরা নিয়ে চলে যায় বলেও অভিযোগ করেন শিল্পীরা।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে অভিযুক্ত জাহাঙ্গীর ও শাহীন হামলা ও ভাঙচুরের কথা অস্বীকার করেন।

বেলাব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তানভীর আহমেদ জানান, খবর পেয়ে আমি টিম নিয়ে আখড়া ধাম পরিদর্শন করেছি। হামলার ঘটনাটি উসকানিমূলক কি-না, তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এখনও কেউ থানায় লিখিত অভিযোগ করেনি।

মানবাধিকার থেকে আরও


Link copied