আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস উদযাপন: ১১ দফা দাবি বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরামের

Anweshan Desk

মানবাধিকার ডেস্ক

০৯ অগাস্ট ২০২২, ১৩:৩৪ পিএম


আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস উদযাপন: ১১ দফা দাবি বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরামের

'আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবসে' ১১ দফা দাবি উপস্থাপন করেছেন বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরামের নেতৃবৃন্দ। মঙ্গলবার (৯ আগস্ট)  বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরামের উদ্যোগে রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এই দাবিগুলো তুলে ধরেন তাঁরা। 

 

এ অনুষ্ঠানে 'বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরাম'র নেতারা, পার্বত্য জনসংহতি সমিতির সভাপতি জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা ওরফে সন্তু লারমা, নাট্যকার মামুনুর রশীদ, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম, মানবাধিকারকর্মী খুশি কবির, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন ও সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সভাপতি হাসানুল হক ইনু, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক মেজবাহ কামালসহ আরও অনেকে অংশগ্রহণ করেন।

 

উপস্থাপিত দাবিগুলো হলোঃ  

১. আত্মনিয়ন্ত্রণ অধিকারসহ 'আদিবাসী'দের সাংবিধানিক স্বীকৃতি দিতে হবে।

২. 'আদিবাসী'দের রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, অর্থনৈতিক ও ভূমির অধিকার নিশ্চিত করতে হবে।

৩. 'আদিবাসী' নারীর অধিকার ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।

৪. পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি যথাযথভাবে বাস্তবায়ন করতে হবে। এ লক্ষ্যে সময়সূচিভিত্তিক রোডম্যাপ ঘোষণা করতে হবে। ভূমি কমিশন আইন অবিলম্বে কার্যকর করতে হবে।

৫. সমতল অঞ্চলের 'আদিবাসী'দের পৃথক মন্ত্রণালয় ও ভূমি কমিশন গঠন করতে হবে।

৬. 'আদিবাসী'দের ভূমিতে তাদের স্বাধীন পূর্বসম্মতি ছাড়া ইকোপার্ক, সামাজিক বনায়ন, টুরিজম, ইপিজেড বা অন্য কোনো প্রকল্প গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করা চলবে না।

৭. 'আদিবাসী'দের ওপর সব নিপীড়ন-নির্যাতন বন্ধ করাসহ সব মিথ্যা মামলা অবিলম্বে প্রত্যাহার করতে হবে। জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে ২০০৭ সালে গৃহীত 'আদিবাসী' বিষয়ক ঘোষণাপত্র ও আইএলও ১৬৯ নম্বর কনভেনশন অনুসমর্থন ও আইএলও কনভেনশন ১০৭ বাস্তবায়ন করতে হবে।

৯. জাতীয় সংসদে 'আদিবাসী'দের জন্য বিশেষ কোটা সংরক্ষণ বা আসন বরাদ্দ রাখতে হবে।

১০. সরকারি প্রথম শ্রেণিতে পূর্বের মতো 'আদিবাসী কোটা' সংরক্ষণ করতে হবে এবং অন্যান্য চাকরিসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তি কোটা যথাযথভাবে বাস্তবায়ন করতে হবে।

১১. রাষ্ট্রীয়ভাবে 'আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস' উদযাপন করতে হবে।

 

উল্লেখ্য, প্রতি বছর  ৯ আগস্ট বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস পালিত হয়। বিশ্বজুড়ে আদিবাসী জনগোষ্ঠীর অধিকার রক্ষার জন্য এই বিশেষ দিনটি পালন করা হয়ে থাকে। আদিবাসী সম্প্রদায়ের অবদান ও অর্জনকে স্বীকৃতি দিতে এই দিবসটি পালনের সিদ্ধান্ত নেয় জাতিসংঘ।

প্রতি বছর দিবসটি পালন করার জন্য একটি প্রতিপাদ্য বিষয় বেছে নেয় জাতিসংঘ। এ বছর আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবসের প্রতিপাদ্য বিষয় হলো 'ঐতিহ্যগত জ্ঞান সংরক্ষণ ও বিকাশে আদিবাসী নারীদের ভূমিকা'। এটি নিজেদের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে আদিবাসী সম্প্রদায়ের নারীরা যে ভূমিকা পালন করেন, তার ওপর জোর দেয়।

১৫৫ বার পঠিত


Link copied