অস্ত্রের মুখে স্কুল ছাত্রীকে অপহরণের চেষ্টা : গণপিটুনি ও গাড়িতে আগুন দিলো সহপাঠীরা

Anweshan Desk

Anweshan Desk

১৬ অক্টোবর ২০২৩, ১১:২০ এএম


অস্ত্রের মুখে স্কুল ছাত্রীকে অপহরণের চেষ্টা : গণপিটুনি ও গাড়িতে আগুন দিলো সহপাঠীরা

ফরিদপুরে দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীকে অস্ত্রের মুখে অপহরণের চেষ্টা রুখে দিয়েছে তার সহপাঠীরা। এসময় অপহরণের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে তিনজনকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দিয়েছে শিক্ষার্থী ও স্থানীয়রা। এছাড়া অপহরণের কাজে ব্যবহৃত একটি মাইক্রোবাসে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়।

শরহতলীর কোমরপুর আব্দুল আজিজ ইনস্টিটিউশনে সোমবার সকাল ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ওই ছাত্রী।

আটক তিনজন হলেন মামুন ,আলমগীর ও সাদ্দাম। এ ঘটনার মূল হোতা বিধান পোদ্দার পালিয়ে গেছে। গণপিটুনিতে আহত আটক একজনকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানান, ধুলদী এলাকার বিধান পোদ্দারের নেতৃত্বে কয়েকজন দুর্বৃত্ত একটি মাইক্রোবাসে করে ওই ছাত্রীকে অস্ত্রের মুখে তুলে নেয়ার চেষ্টা করে।বিষয়টি দেখে তার দুই বান্ধবী অন্যদের জানায় এবং চিৎকার দিতে থাকে।

এ সময় ওই ছাত্রীর সহপাঠী ও স্থানীয়রা যুবকদের আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। পরে ক্ষুব্ধ সহপাঠী ও স্থানীয়রা মাইক্রোবাসে আগুন ধরিয়ে দেয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে মাইক্রেবাসের আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

ফরিদপুরের কোতয়ালী থানার ওসি এম এ জলিল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থী ও স্থানীয়রা তিন যুবককে আটক করে পুলিশে দিয়েছ। অন্যরা পালিয়ে গেছে। ক্ষুব্ধরা আটক গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ ঘটনায় জড়িত অন্যদের গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে । ঘটনার বিস্তারিত তদন্ত শেষে আইনগত পদক্ষেপ নেয়া হবে।’


Link copied