এবার বিয়ের দাবিতে আইডিয়াল স্কুলের শিক্ষকের বাসায় ছাত্রী

Anweshan Desk

Anweshan Desk

৩০ অগাস্ট ২০২৩, ০৯:৪৮ এএম


এবার বিয়ের দাবিতে আইডিয়াল স্কুলের শিক্ষকের বাসায় ছাত্রী

বিতর্ক যেন পিছুই ছাড়ছে না রাজধানীর স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান  মতিঝিলের  আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের। সম্প্রতি স্কুলটির গভর্নিং বডির দাতা সদস্যের সঙ্গে এক ছাত্রীর বিয়ের ঘটনায় চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতির রেশ না কাটতেই আরেক ছাত্রী বিয়ের দাবিতে শিক্ষকের বাসায় গিয়ে হাজির। পরে কয়েকজন শিক্ষক ও এলাকাবাসীর মধ্যস্থতায় ছাত্রীকে তার পরিবারের জিম্মায় দেওয়া হয়।

শিক্ষকের প্রলোভনের ফাঁদ থেকে ছাত্রীর পিতা মেয়েকে উদ্ধার করে শাহজাহানপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন। এ ঘটনায় বিব্রত প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও অভিভাবকরা।

এতে প্রতিষ্ঠানটির অভিভাবক ফোরাম অভিযুক্ত  মূল (মতিঝিল) শাখার ইংরেজি ভার্সনের দিবা শাখার ইংরেজি বিষয়ের শিক্ষক মুরাদ আহম্মদের চাকরিচ্যুতি ও গ্রেফতার দাবি করেছেন।

ভুক্তভোগী  ছাত্রী ও তার পরিবারের অভিযোগ, বিবাহিত দুই সন্তানের জনক হওয়া সত্ত্বেও তা গোপন করে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ছাত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলেছেন শিক্ষক মুরাদ আহম্মদ। কিন্তু এখন আর বিয়ে করতে চাইছেন না তিনি। এজন্য ওই ছাত্রী গত ২৩ আগস্ট রাত ৯টার দিকে রাজধানীর শাহজাহানপুরে শিক্ষকের বাসায় গিয়ে ওঠেন।

ছাত্রীর পিতা থানায় করা সাধারণ ডায়েরিতে উল্লেখ করেছেন, মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের মূল (মতিঝিল) ক্যাম্পাসের ইংরেজি ভার্সনের দিবা শাখার ইংরেজির শিক্ষক মুরাদ আহম্মদের কাছে মেয়ে কোচিং করতো। শিক্ষক মুরাদ আহম্মদ দুই সন্তানের জনক হওয়া সত্ত্বেও আমার কোমলমতি মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক করতে প্রলুব্ধ করে। বিভিন্ন সময় নানারকম প্ররোচনা দেওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৩ আগস্ট মুরাদ আহম্মদ তার উত্তর শাহজাহানপুরের বাসায় আসতে বলে। ওই দিন রাত আনুমানিক ৯টায় আমার মেয়ে মুরাদ আহম্মদের পাতা ফাঁদে পা দিয়ে কাউকে কিছু না বলে তার বাসায় চলে যায়। খবর পেয়ে আমরা মেয়েকে উদ্ধার করতে ওই বাসায় গেলে মুরাদ পালিয়ে যায়।

বুধবার (৩০ আগস্ট) আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অভিভাবক ফোরাম অভিযুক্ত শিক্ষক মুরাদ আহম্মদকে চাকরিচ্যুত ও গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে।

অভিভাবক ফোরাম এমন ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে আরও জানান, 'এর আগেও ২০১৩ সালে ৪র্থ শ্রেণির এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে মুরাদ আহম্মদকে মতিঝিল শাখা থেকে বনশ্রী শাখায় বদলি করা হয়। পরে বর্তমান সভাপতির সহায়তায় তিনি আবার মূল মতিঝিল শাখায় ফিরে আসেন।,


Link copied