শারীরিক অক্ষমতার কারণে স্বামীকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যার অভিযোগ

Anweshan Desk

Anweshan Desk

৩০ অগাস্ট ২০২৩, ০০:৫৫ এএম


শারীরিক অক্ষমতার কারণে স্বামীকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যার অভিযোগ

রাজশাহীর বাগমারা উপজেলায় বিয়ের তিন দিন পর স্বামীকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্ত্রীর বিরুদ্ধে। সোমবার (১৮ আগস্ট) দিবাগত রাতে উপজেলার বাসুপাড়া ইউনিয়নের সাইপাড়া গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। পুলিশ অভিযুক্ত নারীকে গ্রেফতার করেছে।

 

নিহত ব্যক্তির নাম আবদুর রাজ্জাক (৩১)। তিনি নির্মাণশ্রমিক ছিলেন। তিনি ওই গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে।

 

গ্রামের বাসিন্দারা জানান, আগের স্ত্রীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয় রাজ্জাকের। গত শুক্রবার (২৫ আগস্ট) পার্শ্ববর্তী মোহনপুর উপজেলার ধুরইল গ্রামের মো. শুকুরদীর মেয়ে শাপলা খাতুনকে (১৮) বিয়ে করেন। শাপলা খাতুনেরও এটি দ্বিতীয় বিয়ে ছিল।

 

 

বাগমারা থানার ওসি আমিনুল ইসলাম জানান, রাতে স্বামীকে বালিশচাপা দিয়ে হত্যার পর ঘরেই ছিলেন শাপলা। সকালে পরিবারের সদস্যরা হত্যার বিষয়টি বুঝতে পেরে পুলিশে খবর দেন। এরপর পুলিশ গিয়ে তাকে আটক করে।

 

তিনি জানান, শাপলা একেকবার একেক রকমের কথা বলছেন। তিনি কখনও বলছেন, তারা স্বামী-স্ত্রী একে-অপরকে বালিশচাপা দিয়ে খেলতেন। এতে রাজ্জাকের মৃত্যু হয়েছে। আবার কখনও বলছেন, তার স্বামী শারীরিকভাবে অক্ষম ছিলেন। এ কারণে রেগে বালিশচাপা দিয়েছেন।

 

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও জানান, ধারণা করা হচ্ছে, শারীরিক অক্ষমতার কারণেই শাপলা তার স্বামীকে খুন করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। কারণ, এই একই কারণে আগের স্ত্রীর সঙ্গে রাজ্জাকের ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়।

 

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বাগমারা থানার এসআই সুব্রত দাস জানান, মঙ্গলবার সকালে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে গ্রেফতার শাপলাকেও আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।


Link copied