কুমিল্লায় স্কুলছাত্রীদের গালাগাল করা সেই টিকটকার সহযোগীসহ গ্রেফতার

Anweshan Desk

Anweshan Desk

২০ অগাস্ট ২০২৩, ২২:৫৪ পিএম


কুমিল্লায় স্কুলছাত্রীদের গালাগাল করা সেই টিকটকার সহযোগীসহ গ্রেফতার

কুমিল্লায় গোমতায় স্কুলছাত্রীদের গালাগাল করে টিকটক ভিডিও করা সেই টিকটকারকে তার সহযোগী সহ গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।

বুধবার (১৬ আগস্ট) বিকেলে থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘বুঝো নাই ব্যাপারটা’ নামক একটি ফেসবুক পেইজ থেকে আতিক নামের এক কিশোরের ১৯ সেকেন্ডের একটি ভিডিওটি পোস্ট করে।

কুমিল্লার মুরাদনগর থানার গোমতা গ্রামে স্কুল ছাত্রীদের গালাগালি করে ধারণকৃত ওই ভিডিওতে দেখা যায়, বিদ্যালয়ের টিফিন বিরতি চলাকালীন সময়ে ছাত্রীরা ক্লাস থেকে বারান্দায় বের হয়ে আসে। এ সময় পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে একদল বখাটে ছাত্রীদের লক্ষ্য করে গালাগালি করে ভিডিও ধারণ করে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গোমতা গ্রামের ‘আতিক ডন’ নামের এক কিশোর তার সঙ্গীয় দলবল নিয়ে টিকটক ভিডিও তৈরি করে। ফেসবুক পেইজে ‘বুঝো নাই ব্যাপারটা’ নামের একটি ফেসবুক পেইজে সংঘবদ্ধ ওই চক্রটি দীর্ঘদিন যাবত অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ টিকটক ভিডিও তৈরি করে আসছে।

টিকটকের এমন ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ফেসবুকে  সর্বমহলে নিন্দা ও ক্ষোভের ঝড় উঠে। সারাদেশেই বিষয়টি সমালোচনার জন্ম দেয়।  

এমতাবস্থায় জেলা পুলিশ কুমিল্লার নজরে আসা মাত্রই কুমিল্লা জেলার পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান বিপিএম বার এর নির্দেশনায় ঐ গালাগালি করা টিকটকার ও সহযোগীদের চিহ্নিতপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশনা দেন।

এই নির্দেশনা অনুযায়ী  জেলা গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) একটি চৌকস টিম অভিযুক্তদের সকলকে চিহ্নিত করে। আজ চান্দিনা ও দাউদকান্দি থানার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ঘটনায় অভিযুক্ত  আতিক (১৪) (টিকটকার) ও হৃদয় আহমদ (১৭) কে গ্রেফতার করেন এবং টিকটক একাউন্ট ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি জব্দ করেন। গ্রেফতারকৃতরা হলেন: আতিক (১৪), পিতা-রবিউল ইসলাম, মাতা-দিপালী, সাং- তীরচর, বাতাকাশি ২ নং ওয়ার্ড, চান্দিনা, কুমিল্লা এবং ২। হৃদয় আহমদ (১৭), পিতা- মকবুল হোসেন, মাতা: জাহানারা বেগম, সাং-বীরতলা,রতন মেম্বার বাড়ি, ইলিয়টগঞ্জ, দাউদকান্দি, কুমিল্লা।

উক্ত আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে গত ১৭/০৮/২০২৩ তারিখ দুপুর অনুমান ১:৩০-২:০০ঘটিকার সময় গোমতা ইসহাকিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, মুরাদনগর, কুমিল্লার কয়েকজন স্কুলছাত্রীকে আতিক (১৪), (টিকটকার)  কর্তৃক গালাগালি করা এবং সহযোগীদের সহায়তায় গালাগালির বিষয়টি ভিডিও করে টিকটক ভিডিও তৈরী করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার বিষয়টি স্বীকার করে।

কুমিল্লা জেলা প্রশাসক খন্দকার মু. মুশফিকুর রহমান জানান, উক্ত ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে যথাযথ বিধি অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।


Link copied