বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী সানজানার আত্মহত্যার প্ররোচনা মামলায় অবশেষে গ্রেপ্তার বাবা

Anweshan Desk

অন্বেষণ ডেস্ক

৩১ অগাস্ট ২০২২, ১৬:০০ পিএম


বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী সানজানার আত্মহত্যার প্ররোচনা মামলায় অবশেষে গ্রেপ্তার বাবা

ফাইল ছবি

রাজধানীর দক্ষিণখানে ১০তলা ভবনের ছাদ থেকে লাফিয়ে আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলায় ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সানজানা মুসাদ্দিকার (২১) বাবা শাহীন আলমকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব।

বুধবার (৩১ আগস্ট) দুপুরে ময়মনসিংহের গফরগাঁও থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া সহকারী পরিচালক এএসপি আল আমিন।

তিনি বলেন, সানজানার আত্মহত্যার পর থেকে অভিযুক্ত আসামি সানজানার পিতা আত্মগোপনে ছিলেন। পরে ওই শিক্ষার্থীর মায়ের করা মামলার প্রেক্ষিতে ময়মনসিংহের গফরগাঁও এলাকা থেকে অভিযুক্ত শাহিন আলমকে গ্রেপ্তার করা হয়।

রাজধানীর দক্ষিণখানে ১০তলা ভবনের ছাদ থেকে লাফিয়ে আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলায় ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সানজানা মুসাদ্দিকার (২১) বাবা শাহীন আলমকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব।

বুধবার (৩১ আগস্ট) দুপুরে ময়মনসিংহের গফরগাঁও থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে সংবাদমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া সহকারী পরিচালক এএসপি আল আমিন।

তিনি বলেন, সানজানার আত্মহত্যার পর থেকে অভিযুক্ত আসামি আত্মগোপনে চলে যান। পরে ওই শিক্ষার্থীর মায়ের করা মামলার প্রেক্ষিতে ময়মনসিংহের গফরগাঁও এলাকা থেকে অভিযুক্ত শাহিন আলমকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এ বিষয়ে এএসপি আল আমিন বলেন, গত শনিবার (২৭ আগস্ট) দুপুরে দক্ষিণখান মোল্লারটেক এলাকার একটি ১০তলা ভবনের ছাদ থেকে লাফিয়ে আআত্মহত্যা করেন সানজানা মোসাদ্দেক। সন্ধ্যা ৭টার দিকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় রাতেই সানজানার মা বাদী হয়ে নিহতের বাবার বিরুদ্ধে মামলা করেন।

উল্লেখ্য, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের তৃতীয় সেমিস্টারের শিক্ষার্থী আত্মহত্যার আগে তার বাবা শাহীন ইসলামের বিরুদ্ধে একটি সুইসাইড নোট লিখে যান।

সুইসাইড নোটে তিনি লেখেন, আমার মৃত্যুর জন্য আমার বাবা দায়ী। একটা ঘরে পশুর সঙ্গে থাকা যায়। কিন্তু অমানুষের সঙ্গে না। একজন অত্যাচারী রেপিস্ট যে কাজের মেয়েকেও ছাড়ে নাই। আমি তার করুণ ভাগ্যের সূচনা।

৩১৯ বার পঠিত

জাতীয় থেকে আরও


Link copied