শরিয়াহভিত্তিক লভ্যাংশের কথা বলে কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার পর পর্ন ভিডিওসহ র‍্যাবের হাতে গ্রেফতার

Anweshan Desk

জাতীয় ডেস্ক

০৭ অগাস্ট ২০২২, ১৪:৫২ পিএম


শরিয়াহভিত্তিক লভ্যাংশের কথা বলে কোটি টাকা হাতিয়ে  নেয়ার পর পর্ন ভিডিওসহ র‍্যাবের হাতে গ্রেফতার

বইয়ের প্রকাশনীতে বিনিয়োগে ইসলামী শরিয়াহভিত্তিক মুনাফা দেওয়ার কথা বলে শতাধিক ব্যক্তির কাছ থেকে প্রায় কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে মো. এনামুল হক (২৮) নামের এক প্রতারক।  ভুক্তভোগীদের অভিযোগের পর রাজধানীর কদমতলী থেকে বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) রাতে তাকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে প্রতারণার মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নেয়ার বিষয়টা স্বীকার করেছে

 

 র‌্যাব জানিয়েছে, নিজেকে আলিম পাস দাবি করতো এনামুল হক। ধর্মের কথা বলে সাধারণ মানুষকে আকৃষ্ট করতো সে। বিনিয়োগে ইসলামী শরীয়া মোতাবেক লভ্যাংশ দেওয়ার কথা বলে মানুষকে প্রতারিত করে আসছিল। অনেকে জমি বিক্রি, ফ্ল্যাট বন্ধক রেখে ব্যবসায় টাকা বিনিয়োগ করেন। লভ্যাংশ না পেয়ে ভুক্তভোগীরা যোগাযোগ করলে এমনভাবে বোঝানো হতো–তারা টাকা ফেরতের জন্য আরও সময় দিতেন। একের পর এক সময় ক্ষেপণের ঘটনার পর বাধ্য হয়ে অনেকে আইনের আশ্রয় নেন।

র‌্যাব আরো জানিয়েছে, তার বইয়ের প্রকাশনী ছিল কদমতলীতে। শরিয়াহভিত্তিক লভ্যাংশ পাওয়ার আশায় অনেকেই সেখানে বিনিয়োগ করেন। ওই টাকায় সে বিলাসবহুল জীবন যাপন করতো। প্রায় তিন বছর ধরে এ ধরনের প্রতারণার সঙ্গে জড়িত ছিল। করোনার সময় প্রকাশনা বন্ধ হয়ে গেলেও প্রতারণা থাকেনি। এছাড়াও নানা ধরনের প্রতারণার সঙ্গে তার জড়িত থাকার প্রমাণ পেয়েছে র‌্যাব। সে বিভিন্ন জায়গায় বিজ্ঞাপন দিয়ে মুশকিল আসানের কথা বলেও মোবাইল ফোনে যোগাযোগের পরামর্শ দিতো। অনেকে তার সঙ্গে যোগাযোগ করতো। মোবাইল ফোনে পরামর্শ দিয়ে একেক জনের কাছ থেকে হাতিয়ে নিতো লক্ষাধিক টাকা। বিশেষ করে কোনও তরুণী যোগাযোগ করলে মোবাইল ফোনে ছবি পাঠাতে বলা হতো। ছবি না পাঠালে পরামর্শ দেওয়া হতো না। এছাড়া তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে পর্ন ভিডিও পাওয়া গেছে।

র‌্যাব-৩-এর সহকারী পরিচালক খায়রুল কবির বলেন, ‘গ্রেফতারের সময় সে তার নাম ছাড়া বাবা-মা ও ঠিকানা সম্পর্কে বিভ্রান্তিকর তথ্য দিয়েছিল। যাচাই-বাছাই করে নাম ঠিকানা নিশ্চিত হয়ে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

২৯৫৪ বার পঠিত

জাতীয় থেকে আরও


Link copied