অবশেষে গণকমিশনের তালিকার উগ্র ধর্ম ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে দুদকের অনুসন্ধান শুরু

Anweshan Desk

ধর্মীয় সংখ্যালঘু নির্যাতন ডেস্ক

২৩ জুন ২০২২, ১৮:২৫ পিএম


অবশেষে গণকমিশনের তালিকার উগ্র ধর্ম ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে দুদকের অনুসন্ধান শুরু

 অবশেষে মৌলবাদ ও সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের সঙ্গে জড়িত ১১৬ জন ধর্ম ব্যবসায়ীর অস্বাভাবিক আর্থিক লেনদেনের তদন্ত চেয়ে জমা দেওয়া গণকমিশনের অভিযোগ আমলে নিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।  এছাড়া মৌলবাদী তৎপরতায় অর্থ খরচের সঙ্গে জড়িত ১ হাজার মাদ্রাসা পরিচালনার কার্যক্রম অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।  দুদকের পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেনের নেতৃত্বে তিন সদস্যের অনুসন্ধানকারী দল গঠন করা হয়েছে। এ দলের অন্য সদস্যরা হলেন- উপ-পরিচালক মোহাম্মদ ইব্রাহীম ও উপ-পরিচালক আহসানুল কবীর পলাশ।

 

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) দুদকের বিশেষ অনুসন্ধান ও তদন্তের পরিচালক উত্তম কুমার মন্ডলের সই করা চিঠির সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, "গঠিত তিন সদস্যবিশিষ্ট টিমের মাধ্যমে বিশেষ অনুসন্ধান ও তদন্ত শাখা হতে অনুসন্ধানের সদয় অনুমোদন ও অনুসন্ধানের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মহাপরিচালক (বিশেষ তদন্ত) বরাবর প্রেরণের জন্য কমিশন কর্তৃক সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।’

 চিঠির সঙ্গে ২ হাজার ২১৫ পাতার ‘বাংলাদেশে মৌলবাদী সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের ২০০০ দিন’-এর তিন খণ্ড কর্মকর্তাদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

 

দুদক সূত্র জানায়, গণকমিশনের ওই শ্বেতপত্রে মৌলবাদ ও সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের সঙ্গে জড়িত ১১৬ ধর্ম ব্যবসায়ী ও মৌলবাদী তৎপরতার সঙ্গে জড়িত ১ হাজার মাদ্রাসার তালিকা রয়েছে। ওইসব ধর্ম ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে সারাদেশে মৌলবাদী তৎপরতা, সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস, জ্বালাও-পোড়াও, অনিয়ম, দুর্নীতি ও মানি লন্ডারিংয়ের অভিযোগ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১১ মে এক হাজার মাদরাসার তথ্য-উপাত্তের ওপর তদন্ত করে ১০০ ধর্ম ব্যবসায়ীর দুর্নীতির তদন্ত চেয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) তালিকা জমা দিয়েছিল ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সমন্বয় গঠিত গণকমিশন। গণকমিশনের চেয়ারম্যান বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক ও সদস্য সচিব ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধি দল এ সময় উপস্থিত ছিলেন। এ সময়ে গণ কমিশনের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছিল, তাঁদের প্রকাশিত শ্বেতপত্রে সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী ও হেফাজতের বেআইনি অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড উঠে এসেছে। মৌলবাদী গোষ্ঠী দেশে সাম্প্রদায়িক বিষবাষ্প ছড়াতে বিপুল অংকের অর্থ খরচ করছে। এতে তরুণ সমাজ বিপথগামী হচ্ছে।

 

 

৬৮০৭ বার পঠিত

ধর্মীয় সংখ্যালঘু নির্যাতন থেকে আরও


Link copied