প্রথম কৃত্রিম ভ্রূণ তৈরি করলেন ইসরাইলি বিজ্ঞানীরা

Anweshan Desk

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৬ অগাস্ট ২০২২, ১৪:৩৩ পিএম


প্রথম কৃত্রিম ভ্রূণ তৈরি করলেন ইসরাইলি বিজ্ঞানীরা

শুক্রাণু ও ডিম্বাণুর নিষিক্তকরণ ছাড়াই বিশ্বের প্রথম ‘কৃত্রিম ভ্রূণ’ তৈরি করেছেন ইসরাইলের একদল বিজ্ঞানী।  ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। 

 

ইসরাইলের ওয়েইজম্যান ইনস্টিটিউটের বিজ্ঞানীরা গবেষণায় দেখেছেন, ইঁদুরের স্টেম সেল একত্রিত করে ভ্রণের প্রাথমিক আকৃতির মতো কাঠামো দেয়া যেতে পারে। ওই ভ্রুণে অন্ত্রের নালী থেকে শুরু করে মস্তিষ্কের প্রাথমিক গঠন ও হৃদস্পন্দনও থাকবে।

বিজ্ঞানীরা প্রাকৃতিক ভ্রূণের বিকাশের সময় অঙ্গ ও টিস্যু তৈরিতে সাহায্যকারী প্রক্রিয়াগুলো আরো ভালোভাবে বুঝতে পারেন। পাশাপাশি বিজ্ঞানীরা আশা করেন, এই ধরনের কৃত্রিম ভ্রূণ প্রাণীদের পরীক্ষা-নিরীক্ষার বোঝা কমাতে পারে। তার ফলে মানবদেহে প্রতিস্থাপনের জন্য কোষ ও টিস্যুগুলোর নতুন উৎসের পথও তৈরি করতে পারে।

গবেষকদলের প্রধান প্রফেসর জেকব হান্না  দ্য গার্ডিয়ানকে  জানান, লক্ষণীয়ভাবে আমরা দেখাই যে ভ্রূণের স্টেম কোষগুলি সম্পূর্ণ কৃত্রিম ভ্রূণ তৈরি করে, যার অর্থ ভ্রূণের চারপাশে থাকা প্লাসেন্টা এবং কুসুম থলি অন্তর্ভুক্ত। আমরা এই কাজ ও তার প্রভাব সম্পর্কে সত্যিই উত্তেজিত।

গবেষকদের ধারণা এই গবেষণার ফলে প্রাণীর ওপর পরীক্ষা-নিরীক্ষার হার কমানো সম্ভব।  এছাড়া এই গবেষণা মানুষের কোষ এবং টিস্যু প্রতিস্থাপনের জন্য নতুন পথ উন্মোচন করবে। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, এর মাধ্যমে লিউকেমিয়া রোগীর ত্বকের কোষ বোন ম্যারো স্টেম সেলে রূপান্তর করে তাদের চিকিৎসায় ব্যবহার করা যেতে পারে।  

এর আগে গত বছর ওই একই গবেষক দল একটি যান্ত্রিক গর্ভ তৈরি করেছিল। যেখানে প্রাকৃতিকভাবে নিষিক্ত ইঁদুরের ভ্রুণ কয়েকদিন জরায়ুর বাইরেই বেড়ে উঠছিল। নতুন পরীক্ষায় তারা এই একই ডিভাইসটি এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে ইঁদুরের স্টেম সেল বৃদ্ধির জন্য ব্যবহার করেছিল, যা একটি ইঁদুরের গর্ভধারণের সময়ের প্রায় অর্ধেক।

৯২২৫ বার পঠিত

ধর্মীয় সংখ্যালঘু নির্যাতন থেকে আরও


Link copied