নূপুর শর্মাকে সমর্থন করে পোস্ট, সিলেটে হিন্দু যুবক আটক

Anweshan Desk

মত প্রকাশের স্বাধীনতা ডেস্ক

১৫ জুন ২০২২, ১৪:৫১ পিএম


নূপুর শর্মাকে সমর্থন করে পোস্ট, সিলেটে হিন্দু যুবক আটক

শ্রাবণ রাজ সাওতাল

ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির মুখপাত্র নূপুর শর্মা সম্প্রতি এক টেলিভিশন অনুষ্ঠানে ইসলাম ধর্মের প্রবর্তক হযরত মোহাম্মদ সম্পর্কে বক্তব্যকে সমর্থন করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট দেয়ার অভিযোগে সিলেটের গোয়াইনঘাট থেকে শ্রাবণ সাঁওতাল রাজ নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

 

শ্রাবণ ওই চা বাগানের রাঙা সাঁওতালের ছেলে। তিনি জাফলং চা বাগানে একটি ফার্মেসি ব্যবসা পরিচালনা করতেন।

সোমবার (১৩ জুন) ভোররাতে উপজেলার জাফলং চা বাগান থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গোয়াইনঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে.এম নজরুল বিষয়টি মিডিয়াকে নিশ্চিত করেছেন।  

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, শ্রাবণ সাঁওতাল রাজ তার ফেসবুক আইডি থেকে নূপুর শর্মাকে সমর্থনকে পোস্ট দেয়ায় গুজব ওঠে। এই অভিযোগ ওঠার পর  থেকেই ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগে তাঁর ফাঁসীর দাবিতে বিক্ষোভ করে স্থানীয় উগ্রপন্থী মুসলমানদের একটি চক্র। 

উগ্রপন্থীদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা না নিয়ে উলটো শ্রাবণকে গ্রেপ্তার করে  গোয়াইনঘাট থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ইমরুল কবীরে নেতৃত্বে পুলিশের সদস্যরা। পরে তাঁর বিরুদ্ধে থানায় বিতর্কিত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করা হয়।

এ বিষয়ে গোয়াইনঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম নজরুল ইসলাম বলেন,  শ্রাবন সাঁওতালের বিরুদ্ধে থানার এসআই এমরুল কবীর বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাকে আদালতে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

উল্লেখ্য,  গত কয়েক বছর ধরে ইসলাম ধর্ম অবমাননা এবং ধর্মানুভুতিতে আঘাতের গুজব ছড়িয়ে  উগ্রপন্থী ও ধর্মান্ধ মুসলমানদের একটি চক্র ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন ও সাম্প্রদায়িক সহিংসতার ঘটনা ঘটিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু, এদেরকে কঠোর হস্তে দমনের পরিবর্তে, ভিক্টিম সংখ্যালঘুদের বিতর্কিত ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অপব্যবহারে মাধ্যমে হয়রানীমূলক গ্রেফতার এবং বিনা বিচারে হাজতবাস করাতে বাধ্য করছে। 

মানবাধিকার কর্মীদের অভিযোগ,  বিচারহীনতার সংস্কৃতি এবং রাষ্ট্রের ধর্মীয় উগ্রবাদ তোষণের কারণে এ ধরনের ন্যাক্কারজনক ঘটনার পুনরাবৃত্তি হচ্ছে।

 

১৭৭ বার পঠিত

মত প্রকাশের স্বাধীনতা থেকে আরও


Link copied