গাবতলীতে ডিবি পরিচয়ে হিন্দু ব্যবসায়ীর ৩৮ ভরি স্বর্ণালংকার ছিনতাই, এএসআই ‘আটক’

Anweshan Desk

জাতীয় ডেস্ক

১৯ জুলাই ২০২২, ১৩:৪২ পিএম


গাবতলীতে ডিবি পরিচয়ে হিন্দু ব্যবসায়ীর ৩৮ ভরি স্বর্ণালংকার ছিনতাই, এএসআই ‘আটক’

রাজধানীর মিরপুরের গাবতলীতে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে এক হিন্দু মালিকানাধীন স্বর্ণের দোকানের কর্মচারীর ৩৮ ভরি স্বর্ণ, একটি মোবাইল ও দোকানের গুরুত্বপূর্ণ কাগজ লুট করেছে দুর্বৃত্তরা।  

 

রোববার (১৭ জুলাই) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে দারুস সালাম থানাধীন গাবতলী বাস টার্মিনালের বসুমতি বাস কাউন্টারের সামনে ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে সোমবার রূপনগর থানার এএসআই জাহিদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।  ওই দোকান কর্মচারীর নাম টিটু প্রধানিয়া। তিনি পুরান ঢাকার তাঁতীবাজারের ধানসিঁড়ি চেইন অ্যান্ড বল হাউজের কর্মচারী।  

 

এ ঘটনায় অজ্ঞাত ৫-৬ জনকে আসামি করে দারুস সালাম থানায় একটি মামলা হয়েছে। মামলার বাদী টিটু প্রধানিয়া। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে রূপনগর থানার এএসআই জাহিদকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার সকালের দিকে জাহিদকে আটক করে দারুস সালাম থানায় নেওয়া হয়। পুলিশের একটি গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিবেদনেও এ তথ্য উঠে এসেছে। তবে থানা কর্তৃপক্ষ আটকের বিষয়টি অস্বীকার করেছে।  

 

মামলার অভিযোগে জানা যায়, রোববার সকালে ৩৮ ভরি ১৪ আনা স্বর্ণ একটি ব্যাগে নিয়ে টাঙ্গাইল যাওয়ার উদ্দেশ্যে গাবতলীতে আসেন টিটু প্রধানিয়া। এমন সময় অপরিচিত এক ব্যক্তি টিটুর কাছে নিজেকে ডিবি পুলিশ পরিচয় দেন। ওই ব্যক্তি ব্যাগে কী আছে তা জানতে চাইলে টিটু স্বর্ণের কথা বলেন। অজ্ঞাত ওই ব্যক্তি এ সংক্রান্ত কাগজপত্র দেখতে চান।  

 

টিটু ওই ব্যক্তিকে স্বর্ণের কাগজ দেখালে আরও ৪-৫ জন অজ্ঞাত ব্যক্তি ঘটনাস্থলে আসেন। টিটু বুঝতে পারেন তারা (অজ্ঞাত ৪-৫ জন) ডিবি পুলিশ পরিচয় দেওয়া ওই ব্যক্তির সঙ্গের লোক। একপর্যায়ে হুমকি ধমকি ও ভয়ভীতি দেখিয়ে টিটুর কাছ থেকে স্বর্ণের ব্যাগটি ছিনিয়ে নেয় তারা। এরপর থানায় নিয়ে যাবার কথা বলে টিটুকে একটি সিএনজিতে তোলেন অজ্ঞাত ব্যক্তিরা। এরপর তেজগাঁও থানায় নিয়ে যাবার কথা বলে বিজয় সরণি মোড়ে টিটুকে সিএনজিতে রেখে পালিয়ে যায় তারা।

 

দারুস সালাম থানার ওসি তোফায়েল আহমেদ বলেন, এ ঘটনায় অজ্ঞাত ৫-৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। কাউকে আটক করা যায়নি। আসামি ধরতে অভিযান চলছে।  

 

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এ ঘটনায় রূপনগর থানার কোনো পুলিশ সদস্য আটক কিংবা গ্রেপ্তার হয়নি। যদি এ রকম কিছু হয় তাহলে আমি নিজেই জানাব।

 

এদিকে রূপনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আরিফুর রহমান জানিয়েছেন, আটক এএসআই জাহিদকে ডিবি অফিসে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। 

২১৬ বার পঠিত

ধর্মীয় সংখ্যালঘু নির্যাতন থেকে আরও


Link copied