গাইবান্ধায় ৪ মন্দিরে হামলা-ভাঙচুর, মুসলমান যুবক আটক

Anweshan Desk

ধর্মীয় সংখ্যালঘু নির্যাতন ডেস্ক

০৯ জুলাই ২০২২, ২২:২৩ পিএম


গাইবান্ধায় ৪ মন্দিরে হামলা-ভাঙচুর,  মুসলমান যুবক আটক

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় একরাতে চারটি পারিবারিক পূজা মন্দিরে হামলা ও প্রতিমা ভাঙচুরের ঘটনা ঘটিয়েছে একজন উগ্রপন্থী মুসলমান যুবক। আরিফুল ইসলাম নামের ঐ নামের উগ্রপন্থীকে হাতেনাতে ধরে পুলিশে সোর্পদ করেছে এলাকাবাসী। আরিফুল ইসলাম তালুককানুপুর ইউনিয়নের কাপাশিয়া গ্রামের হায়দার আলীর ছেলে।

 

গত ৪ জুলাই সোমবার দিবাগত রাতে উপজেলার তালুককানুপুর ইউনিয়নের দামোদরপুরের হিন্দুপাড়া গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। এর মধ্যে দুটি লক্ষ্মী মন্দির, একটি কালী মন্দির ও একটি শিব মন্দির। ভাঙচুর করা হয় এসব মন্দিরের ভেতরে থাকা বিভিন্ন প্রতিমার মাথা, হাত-পাসহ বিভিন্ন অংশ।

ঘটনাস্থল পরির্দশনকারী গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইজার উদ্দিন সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, রাতে আরিফুল ইসলাম মোটরসাইকেল করে এসে মন্দিরে হামলা চালায়। লাঠি ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে মন্দিরে থাকা প্রতিমা ভাঙচুর করতে থাকে আরিফুল। এসময় স্থানীয়রা তাৎক্ষণিক আরিফুলকে আটক করে ৯৯৯ নম্বরে ফোন দেয়। পরে পুলিশ রাতেই অভিযুক্ত আরিফুলকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে।

তিনি আরও জানান, হঠাৎ করেই আরিফুল কেনো মন্দিরে হামলা-ভাঙচুর চালিয়েছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এছাড়া এই ঘটনায় অন্য কারোর সম্পৃক্ততা আছে কিনা তাও তদন্তে শনাক্তসহ শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

এদিকে, রাতের বেলায় একসঙ্গে চারটি মন্দিরের প্রতিমা ভাঙচুরের ঘটনায় স্থানীয়দের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে। অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির জন্য পরিকল্পিতভাবে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত শনাক্ত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষের।

৩১৫ বার পঠিত

ধর্মীয় সংখ্যালঘু নির্যাতন থেকে আরও


Link copied