হিন্দুদের ‘মা লা উ ন’ বলে গালি দিলেন বিচারক হাসান মাহমুদুল ইসলাম

Anweshan Desk

Anweshan Desk

১০ নভেম্বর ২০২২, ১২:৪৫ পিএম


হিন্দুদের ‘মা লা উ ন’ বলে গালি দিলেন বিচারক হাসান মাহমুদুল ইসলাম

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে একটি কমেন্টে হিন্দুদের মালাউন বা অভিশপ্ত বললে গালি দিলেন হাসান মাহমুদুল ইসলাম নামক একজন বিচারক।

টি টুয়েন্টি ক্রিকেট বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে ভারতের হারকে কেন্দ্র করে গতকাল বৃহস্পতিবার(১০ নভেম্বর) বিকাল ৫ টার দিকে এহতেশামুল ইমরান নামক একজন ব্যক্তি খুশির ইমোজি ব্যবহার করে ইন্ডিয়াকে বিদ্রুপ করে একটি পোস্ট করেন, "ইন্ডিয়া বুলছে ছেড়ে দে মা! কেঁদে বাঁচি।  ১০ উইকেটে হার! 😁😁😁 "

ওই পোস্টের কমেন্টে , "খুব শান্তি পেলাম। মালাউনরা হারলে খুব ভালো লাগে।" বলে মন্তব্য করেন এই বিচারক। অন্বেষণ নিউজ তথ্য যাচাই করে প্রমাণ পেয়েছে যে কমেন্টকারী ওই আইডিটি এই বিচারকের।

এই বিচারক ২৪তম বিসিএসে উত্তীর্ণ হয়ে কুড়িগ্রাম চিফ জুডিশিয়াল মেজিস্ট্রেট কোর্টে চীফ মাজিস্ট্রেট এর দায়িত্বে ছিলেন এবং বর্তমানে তিনি নওগাঁ জেলা দায়রা জজ কোর্টে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ হিসেবে কর্মরত আছেন।

এদিকে, দেশের একজন বিচারকের এমন হিন্দুবিদ্বেষী মন্তব্যকে ঘিরে ক্ষোভ ও নিন্দার ঝড় উঠেছে অসাম্প্রদায়িক এবং প্রগতিশীল চেতনার মানুষদের মাঝে। বিসিএস এবং বিচারক নিয়োগের ক্ষেত্রে মানসিকতা যাচাই এবং তদন্তের ক্ষেত্রে গাফেলতির কারণে আজ একটি স্বাধীন অসাম্প্রদায়িক দেশের উচ্চপদস্থ পর্যায়ে সাম্প্রদায়িক এবং স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তিরা স্থান করে নিয়েছে বলে অনেকে অভিযোগ করছেন। এমন অপশক্তিগুলোর বিরুদ্ধে এখনই সচেতন হওয়ার জন্য এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা নেয়ার দাবি উঠেছে সচেতন মহলে।

এর পূর্বেও বিভিন্ন সময় সরকারি উচ্চপদস্থদের এমন সাম্প্রদায়িক এবং মৌলবাদী আচরণ বিভিন্ন সময় প্রকাশ পেলেও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা নেয়া হয়নি বলেও অভিযোগ রয়েছে। খুব বেশি ভাইরাল না হলে সাধারণত কোন ব্যবস্থাই নেয়া হয় না৷ এমন মানসিকতার লোকেরা একটি অসাম্প্রদায়িক দেশের জন্য স্পষ্ট হুমকি বলে উল্লেখ করে এদের চিহ্নিত করে এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন বলে মনে করেন বিশিষ্টজনরা।

২৭৫৪ বার পঠিত

ধর্মীয় সংখ্যালঘু নির্যাতন থেকে আরও


Link copied