কুড়িগ্রামে মন্দিরে অগ্নিসংযোগ ও প্রতিমা ভাঙচুর

Anweshan Desk

ধর্মীয় সংখ্যালঘু নির্যাতন

০৯ অগাস্ট ২০২২, ১৫:১৮ পিএম


কুড়িগ্রামে মন্দিরে অগ্নিসংযোগ ও প্রতিমা ভাঙচুর

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলায় মন্দিরে অগ্নিসংযোগ ও প্রতিমা ভাঙচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে উপজেলার নাওডাঙ্গা ইউনিয়নের নাওডাঙ্গা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

 

এই ঘটনা জানাজানি হবার পর মঙ্গলবার সকাল থেকে স্থানীয় হিন্দুদের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে তদন্ত শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন ফুলবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফজলুর রহমান।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে,  নাওডাঙ্গা গ্রামের রতিকান্ত রায়ের বাড়ির উঠানের মন্দিরে শিব ও মনসা প্রতিমা রাখা ছিল। রাত দুইটার দিকে অজ্ঞাত সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসীরা মন্দিরে হামলা চালিয়ে প্রথমে শিব ও মনসার প্রতিমা ভাঙচুর করে এবং পরবর্তীতে মন্দিরে আগুন দিয়ে পালিয়ে যায়।। এতে মন্দিরের ৪০ শতাংশ আগুনে পুড়ে গেছে। রতিকান্তের প্রতিবেশীরা এই ঘটনা টের পেয়ে তাঁকে অবহিত করে এবং স্থানীয়দের সহায়তায় তিনি আগুন নেভাতে সক্ষম হন। 

এই ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী গোলবার রহমান জানান, রাত আড়াইটার মধ্যে মন্দিরে আগুন জ্বলতে দেখতে রতিকান্তকে ঘুম থেকে ডেকে তোলেন। পরে সবাই মিলে আগুন নেভান।

ফুলবাড়ী উপজেলার পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি কার্তিক চন্দ্র রায় জানান, প্রতিমা ভাঙচুর করে মন্দিরে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার ঘটনায় এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে। বিষয়টি উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ফুলবাড়ী থানার ওসি ফজলুর রহমান বলেন, “ঘটনাটি শুনে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে এসেছি। ঘটনাটি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করে দুর্বৃত্তদের বিরুদ্ধে আইনের আওতায় আনা হবে।”

ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সুমন দাস বলেন, “ঘটনাটি জেনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।” 

 

২৪৮০ বার পঠিত

ধর্মীয় সংখ্যালঘু নির্যাতন থেকে আরও


Link copied