তাহিরপুরে মাদ্রাসায় না আসায় শিশুশিক্ষার্থীকে পাশবিক নির্যাতন

Anweshan Desk

ডেস্ক রিপোর্ট

১২ মে ২০২৪, ১৪:১০ পিএম


তাহিরপুরে মাদ্রাসায় না আসায় শিশুশিক্ষার্থীকে পাশবিক নির্যাতন

ছবি : নির্যাতিত শিক্ষার্থী নৌরভ হাসান

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে একদিন মাদ্রাসায় না আসায় নৌরভ হাসান নামক হিফজ বিভাগের এক শিক্ষার্থীকে বেধড়ক মারধর করেছেন শিক্ষক। শনিবার (১১ মে) উপজেলার দারুল আজহার বাদাঘাট ক্যাডেট মাদ্রাসায় এ ঘটনা ঘটে।

নৌরভ হাসান উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের কামড়াবন্দ গ্রামের বাসিন্দা নিজাম উদ্দিনের ছেলে।

আহত ছাত্রের বাবা নিজাম উদ্দিন বলেন, ছেলেকে হাফেজ বানানোর আশায় ওই মাদ্রাসায় ভর্তি করি। সেখানে পড়াকালীন সময়ে সে মাদ্রাসায় অনুপস্থিত থাকত না, শুধু শুক্রবার (১০ মে) রাতেই মাদ্রাসায় যায়নি। পরের দিন শনিবার বেলা ১১টায় সে মাদ্রাসায় গেলে মাদ্রাসার শিক্ষক হাফেজ সায়েম তাকে বেত দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে শরীরের দুই হাত-পা ও পিঠে জখম করে মাদ্রাসায় তিন ঘণ্টা আটকে রাখেন।

তিনি বলেন, বিকালে খবর পেয়ে মাদ্রাসায় গিয়ে দেখতে পাই ছেলে কান্নাকাটি করছে। এ সময় তার কাছে শিক্ষকদের নির্যাতনের বর্ণনা শুনি। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে ওই শিক্ষকের নির্যাতনের চিহ্ন দেখে দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা করি। এ ব্যাপারে আইনের আশ্রয় নেব আমি।

জানতে চাইলে মাদ্রাসার শিক্ষক হাফেজ সায়েম বলেন, শুক্রবার রাতে না আসায় ও পরেরদিন দেরি করে মাদ্রাসায় আসায় আমি রাগের মাথায় তাকে কিছুটা বেশি শাসন করেছি।

তাহিরপুর থানার ওসি মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন কালবেলাকে বলেন, মাদ্রাসাছাত্রের পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ দিলে আমরা অবশ্যই আইনি ব্যবস্থা নেব।

ধর্মীয় সংখ্যালঘু নির্যাতন থেকে আরও


Link copied