ব্লগার অভিজিৎ রায়ের খুনি ভারতের উত্তর প্রদেশ থেকে গ্রেফতার

Anweshan Desk

অন্বেষণ ডেস্ক

১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২৩:০৭ পিএম


ব্লগার অভিজিৎ রায়ের খুনি ভারতের উত্তর প্রদেশ থেকে গ্রেফতার

ব্লগার অভিজিৎ রায়ের খুনি গ্রেফতার ভারতের উত্তর প্রদেশে

ভারতের উত্তর প্রদেশের সাহারানপুরে কলকাতা পুলিশের এসটিএফের জালে ধরা পড়ল সন্দেহভাজন আল কায়দা সদস্য। গ্রেফতারকৃত অভিযুক্তকের  নাম হাসনাত শেখ। বাড়ি মালদহের সুজাপুরে। গোয়েন্দা সূত্রে খবর, বাংলাদেশের ব্লগার অভিজিৎ রায়ের খুনের সঙ্গে জড়িত এই হাসনাত। গোয়েন্দাদের কাছে খবর ছিল বাংলাদেশের জনপ্রিয় ব্লগার অভিজিৎ রায় খুনের পেছনে রয়েছে আল কায়দা ইন ইন্ডিয়ান সাবকন্টিনেন্ট। ওই ঘটনার সঙ্গে জড়িত হাসনাত শেখকে চিহ্নিত করে।

ওই তথ্যের উপরে খোঁজখবর করতে গিয়ে তদন্তকারীরা সুজাপুরে যান। কিন্তু সেখানে তাকে পাওয়া যায়নি। শেষপর্যন্ত জানতে পারা যায় হাসনাত বাংলা থেকে পালিয়ে উত্তরপ্রদেশের সাহারানপুরে আশ্রয় নিয়েছে। ওই খবর পাওয়ারপরই সাহারানপুরে হাসনাতের উপরে নজর রাখছিলেন। শেষপর্যন্ত তারা নিশ্চিত হন তাদের সন্দেহ করা ব্যক্তিই হাসনাত। তারপরেই তাকে গ্রেফতার করা হয় এবং তাকে কলকতায় আনাও হয়েছে।
 

গোয়েন্দা সূত্রে খবর, আল কায়দা ইন ইন্ডিয়ান সাবকন্টিনেন্টের(AQIF) এর একজন সক্রিয় সদস্য এই হাসনাত খান। বিস্ফোরক, যোগাযোগ ব্যবস্থার প্রযুক্তি-সহ বহু বিষয়ে তাকে ট্রেনিং দেওয়া হয়। রাজ্যের বাইরে একিউআইএফের যেসব সদস্য রয়েছে তাদের সঙ্গে হাসনাতের ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ ছিল। পাশাপাশি বাংলাদেশে একিউআইএফের কয়েকজন শীর্ষকর্তার ঘনিষ্ঠ যোগ রয়েছে। দুটি মোবাইল অ্য়াপ থেকে সেই সংক্রান্ত তথ্যও পাওয়া গিয়েছে। বেশকিছু ষড়যন্ত্রের সঙ্গে তার জড়িত থাকার তথ্য পাওয়া গিয়েছে।
 

উল্লেখ্য, গত ১৭ আগস্ট উত্তর ২৪ পরগনার খড়িবাড়ি এলাকা থেকে আলকায়দা জঙ্গি সন্দেহ ২ যুবককে গ্রেফতার করে এসটিএফ। ধৃতদের নাম আবদুর রফিক সরকার ওরফে হাবিবুর এবং কাজি এহসান মোল্লা ওরফে হাসান। ধৃত আবদুর রফিক সরকার আল-কায়েদা ইন ইন্ডিয়ান সাব-কন্টিনেন্টের (AQIS) পশ্চিমবঙ্গের অপারেশনের চার্জে ছিলেন। সে নিজে দক্ষিণ দিনাজপুরের গঙ্গারামপুরের বাসিন্দা। এসটিএফ সূত্রে খবর, অফিসারদের কাছে গোপন সূত্রে খবর আসে যে, উত্তর ২৪ পরগনার খড়িবাড়িতে আরও এক জঙ্গির সঙ্গে দেখা করতে আসবে আবদুর রফিক। সেই মতো গোপন অপারেশন চানায় এসটিএফ (STF)। তাতেই মেলে সাফল্য। একসঙ্গে দুই আল কায়েদা জঙ্গি অফিসারদের জালে ধরা পড়ে।
 

গোয়েন্দারা জানতে পেরেছিলেন কয়েকদিন, আগে বাংলাদেশ সীমান্তে ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থা করা কারও সঙ্গে দেখা করতে আসবেন আবদুর রফিক সরকার। সেই ব্যক্তি কাজি এহসান মোল্লা। এরপর থেকেই আবদুর রফিকের উপর নজর রাখতে শুরু করেন অফিসাররা। বুধবার যখন তারা একসঙ্গে হয়, তখন তাদের গ্রেফতার করা হয়। সূত্রের খবর, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধৃতরা স্বীকার করেছেন যে তারা আল কায়েদা ইন ইন্ডিয়ান সাব-কন্টিনেন্টেরে সদস্য। আবদুর রফিক নাকি নিজে জানিয়েছেন, তিনি আল-কায়েদা ইন ইন্ডিয়ান সাব-কন্টিনেন্টের চার্জে রয়েছেন। ধৃতদের কাছ থেকে বহু মৌলবাদী নথি এবং বহু গোপন তথ্য উদ্ধার হয়েছে।

১৬৭১ বার পঠিত

মানবাধিকার থেকে আরও


Link copied